দেশ এবং দেশের প্রয়োজনের সময়ে দেশপ্রেমী লোকজনই সামনে এগিয়ে আসে। বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো আমাদের দেশেও চলমান করোনা ভাইরাসের মহাক্রান্তিকালে জনসাধারণের মধ্যে ত্রাণ বিতরণ করলেন ডাবলিন আওয়ামী লীগের সম্মানীত সাধারণ সম্পাদক অলক সরকার।

জনহিতকর কাজে জনদরদী এই নেতাকে প্রায় সর্বদা দেশের স্বার্থে জড়িত উন্নয়নমুলক কর্মকান্ডে দেখতে পাওয়া যায়।

বাবু অলক সরকার সমগ্র আয়ারল্যান্ডসহ অন্যান্য ইউরোপীয় দেশের আওয়ামী লীগের মধ্যে একজন সুপরিচিত ব্যক্তি।

দেশপ্রেমে উদ্ভাসিত এই নেতা তার সাহসী এবং অবিচল নীতির কারনে জনসম্মুখে দাঁড়িয়ে সোজাসাপ্টা যেকোনো বিষয়ে কথা বলার জন্য বিখ্যাত। বিগত দিনেও আমরা দেখেছি ডাবলিনে পাসপোর্ট সার্জারি নিয়ে জনসাধারণের কষ্ট লাঘবে তিনি দল ও মতের তোয়াক্কা না করে জনসাধারণের পাশে দাঁড়িয়েছিলেন।

এই দুর্যোগেও তার ব্যতিক্রম হয়নি। বিভিন্ন সূত্র থেকে আমরা জেনেছি আয়ারল্যান্ডে এই লক-ডাউনের সময়ে বিভিন্ন জনকে ফোন করে তাদের খবরাখবর নিয়েছেন এবং কোনো প্রয়োজন হলে পাশে থাকার প্রতিশ্রুতিও দিয়েছেন।

এই কোরোনাক্রান্তিকালে মহাব্যাধি ও অত্যন্ত ছোঁয়াচে রোগ করোনা উপশমে সামাজিক দূরত্ব ও ঘরে বন্দি থাকাটাই এখন একমাত্র উপায়। বাংলাদেশ সহ বিভিন্ন দেশের সরকার ঘরে থাকার জন্য তাদের সকল নাগরিকদের অনুরোধ জানিয়েছেন। তাই কোনো কাজ না থাকা ঘরে বন্দি চাঁদপুর জেলার হাইমচর এলাকায় গরিব দুঃখী মানুষের পাশে দাঁড়ালেন ডাবলিন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অলক সরকার।


তিনি সেখানে ত্রাণ বিতরণ করেন দিনমজুর, শ্রমিক ও কৃষক পরিবারের মধ্যে, এছাড়া খুলনায় দুইটি পরিবারকে আর্থিক ভাবে সাহায্য করা হয়।

সরকারি নির্দেশ মেনে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার জন্য ও জনসমাগম এড়াতে দুইদিন ব্যাপী দিনের কয়েকটি ভাগে ত্রাণ বিতরণ করা হয়।

ত্রাণের মধ্যে ছিল ৮ কেজি চাল, ১ কেজি ডাল ও ১ লিটার তেল।

আর এই ক্ষেত্রে বাংলাদেশে ওনাকে স্বেচ্ছাসেবক হিসেবে সার্বিক সহযোগিতা করেন স্থানীয় খোকন, আকাশ, অজয়, নয়ন, রাজীব, মিন্টু ও জয়ন্ত। তিনি স্বেচ্ছাসেবকদের আন্তরিক ধন্যবাদ জানান।

ফোনে কথা হলে অলক সরকার জানান এই ত্রাণ বিতরণ এখানেই সমাপ্তি হচ্ছে না, আরো কিছু জায়গায় ত্রাণ বিতরণ প্রক্রিয়াধীন আছে। খুব শীগ্রই আরো কিছু জায়গায় ত্রাণ বিতরণ করা হবে। আর লক-ডাউন না উঠা পর্যন্ত তিনি মানুষকে তাদের প্রয়োজন অনুযায়ী সাহায্য করে যাবেন।

আপডেট: গতকাল ফোনে তিনি জানিয়েছিলেন তিনি আরো কিছু ত্রাণ কার্য পরিচালনা করবেন। আজকে আমরা জানলাম তিনি দেশের রাজধানী ঢাকাতে ৩০০ নিন্মআয়ের মানুষদের জন্য আহার জুগিয়েছেন। তিনি এই সহযোগিতার জন্য আয়ারল্যান্ড ছাত্র লীগকে ও বাংলাদেশে রিব্বী ইসলামের পুরো টিমকে ধন্যবাদ জানান।

এই বিশাল কর্মযজ্ঞ আয়ারল্যান্ড ছাত্র লীগের সাধারণ সম্পাদক রিব্বী ইসলামের তত্বাবধানে অনুষ্ঠিত হয়। তাকে সার্বিক সহযোগিতা করেন ডাবলিন আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা সৈয়দ বিপুল। সহযোগিতায় আরো ছিলেন হিমেল ইসলাম, আলভী হোসাইন ধীমান, ফাহাদ হক, ফয়জুল ইসলাম, ফিরোজ ও খোকন হক।

আয়ারল্যান্ড ও ডাবলিন আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকেও আমরা সকলকে অনুরোধ করবো এই দুর্যোগ মুহূর্তে জনগণের পাশে এসে দাঁড়ানোর জন্য। আমাদের এই পোস্টের উদ্দেশ্য দেশে বা বিদেশে অন্যান্য সকলকে সামর্থ্য অনুযায়ী ত্রাণ দেওয়ার জন্য অনুপ্রাণিত করা।

সমীর কুমার ধর
সাংগঠনিক সম্পাদক
ডাবলিন আওয়ামী লীগ, আয়ারল্যান্ড