প্রায়ই আমরা যখন লিনাক্স সম্পর্কে কথা বলি মানুষের সাথে তখন কিছু কমন প্রশ্ন ব্যবহারকারীদের জিজ্ঞাসা করতে দেখি। এখানে একজন কাল্পনিক প্রশ্নকর্তা ও উত্তরদাতার মধ্যে কথোপকথন তুলে ধরা হলো। আশা করি নিন্মোক্তে কথোপোকথন পড়ার পর আপনারা লিনাক্স ব্যবহারে আগ্রহী হবেন।

প্রশ্ন: শুনেছি লিনাক্স নাকি টেক্সট কমান্ড বেসড্?
উত্তর: সব ওপারেটিং সিস্টেমই কমান্ডের উপর ভিত্তি করে কাজ করে। তবে ব্যবহারকারীদের সুবিধার জন্যই গ্রাফিক্যাল ইন্টারফেস আনা হয়েছে। প্রাথমিকভাবে লিনাক্স ডিস্ট্রো টেক্সট কমান্ড বেস্ড ছিলো। তবে তাও সেই ৯০ এর দশকে। এখন অধিকাংশ লিনাক্স অপারেটিং সিস্টেমই গ্রাফিক্যাল বেসড হয়ে গেছে। এখন x-server-কে মাধ্যম (medium) করে লিনাক্স ডিস্ট্রো গ্রাফিক্যাল ইউসার ইন্টারফেস দিচ্ছে। বর্তমানে মূলত তিন ধরনের ডেস্কটপ এনভারমেন্ট ব্যবহার করা হচ্ছে লিনাক্স ডিস্ট্রোগুলোতে। নোম (যদিও লেখা হয় gnome) , কেডিই এবং এক্সএফসিই। তবে এগুলো ছাড়াও এনলাইটমেন্ট, ওয়ার্কবেঞ্চ, এক্সফাস্ট কয়েকটি লিনাক্স ডিস্ট্রোতে ব্যবহার করা হয়।

প্রশ্ন: লিনাক্স ডিস্ট্রো কমান্ড লিখে কাজ করতে হয় বলে জানি।
উত্তর: প্রায় সব কাজই গ্রাফিক্যালই করা সম্ভব। তবে অধিকাংশ লিনাক্স ব্যবহারকারীরা কমান্ডের মাধ্যমে কাজ করা পছন্দ করেন কারন একটি লাইনের মাধ্যমে দশ বারোটি ক্লিকের কাজ করা যায়। এতে সময় ও শ্রম বাঁচে যেমন উবুন্টু সিস্টেম গ্রাফিক্যালি ম্যানুয়ালি আপডেট/আপগ্রেড করতে চাইলে আপনাকে ৫ টি ক্লিক করতে হচ্ছে যেখানে একটি কমান্ড লাইনে হয়ে যাচ্ছে sudo apt-get update && sudo apt-get upgrade

প্রশ্ন: সবাই বলে লিনাক্স ডিস্ট্রো খুবই কঠিন।
উত্তর: মোটেও না। লিনাক্স ডিস্ট্রো আর যে কোন অপারেটিং সিস্টেমের মতো ব্যবহারকারীদের পছন্দ, অভ্যাস ও জ্ঞানের উপর নির্ভর করবে। যারা উইন্ডোজ বা ম্যাকে দীর্ঘদিন অভ্যস্থ তাদের জন্য প্রথম প্রথম সমস্যা হলেও পরবর্তীতে ঠিক হয়ে যাবে।

প্রশ্ন: লিনাক্স ডিস্ট্রোর জন্য হাইএন্ড কম্পিউটার সিস্টেম লাগে।
উত্তর: বরং উল্টো। লিনাক্স ডিস্ট্রো রিসোর্স খায় কম। তাই পুরানো সিস্টেমেও আরামে চালানো সম্ভব। এমনকি সেলেরন প্রসেসরের ১২৮ মেগা র‍্যাম নিয়েও দৌড়াবে লিনাক্স সিস্টেম

প্রশ্ন: লিনাক্স ডিস্ট্রো ব্যবহার বান্ধব নয়।
উত্তর: অনেক লিনাক্স ডিস্ট্রোই ব্যবহার বান্ধব। যেমন উবুন্টু ইতিমধ্যে বেশ সুনাম করেছে ব্যবহারবান্ধব লিনাক্স ডিস্ট্রো হিসেবে। বর্তমানে প্রায় অধিকাংশ নতুন ব্যবহারকারীরাই উবুন্টু ব্যবহার করেন এটি ব্যবহারবান্ধব ও সহজ বলে।

প্রশ্ন: লিনাক্স সিস্টেম এডভান্সড ব্যবহারকারীদের জন্য
উত্তর: লিনাক্স ডিস্ট্রো সকল ধরনের ব্যবহারকারীদের কথা মাথায় রেখে তৈরি করা হয়। সাধারন ব্যবহারকারীরাও অনায়াসে লিনাক্স ইনস্টল করে ব্যবহার করতে পারেন। এজন্য এডভান্সড কোন জ্ঞানের প্রয়োজন হয়না। প্রয়োজন কেবল এনভায়ার্মেন্ট সম্পর্কে ধারনা এবং ভিন্ন এনভায়ার্মেন্টে অভ্যস্থ হতে পারা। ব্যবহারকারীদের সকল চাহিদা মেটানোর জন্য লক্ষাধিক লিনাক্স ডিস্ট্রো আছে।

প্রশ্ন: লিনাক্সের গুনগত মান খারাপ।
উত্তর: লিনাক্সের গুনগত মান মোটেও খারাপ নয়। বরং এটি অনেক উন্নত সিস্টেম। ক্লোজড সোর্স অপারেটিং সিস্টেম হাতে গোনা কয়েকজন ডেভেলপার দেখতে পারেন এবং ঠিক করতে পারেন। এজন্য কোন বাগ থাকলে তা সবাই যেমন দেখতে পারবেন না তেমনই ঠিকও করতে পারবেন না। আবার সব ডেভেলপার সবকিছুর সমাধান দিতে পারেন না। এজন্য ক্লোজড সোর্সে সিস্টেমে সমস্যা থেকে যেতেই পারে। অন্যদিকে লিনাক্স সিস্টেম মুক্তসোর্স হবার কারনে পৃথিবীর যেকোন প্রান্ত থেকে যে কেউ সোর্সকোড পড়তে পারে। এবং কোথাও কোন বাগ থাকলে তা রিপোর্ট করতে পারে অথবা ঠিক করে ইন্টারনেটে ছাড়তে পারে সমাধান। এছাড়া হাজার হাজার ডেভেলপার কাজ করেন বলে একজনের কাজের ভুল শুদ্ধ করে দিতে পারেন। এবং দ্রুত কাজ সম্পন্ন করতে পারেন। যেমন এখন অনেক লিনাক্স ডিস্ট্রোই ছয় মাস থেকে এক বছরের মাথায় নতুন ভার্সন রিলিজ করে। উন্নতি বেশ দ্রুত ঘটে। আর লিনাক্সের সোর্স কোড মুক্ত বলেই ব্যবহারকারী প্রয়োজনে তার কাজের সুবিধার্থে যেকোন ভাবে সিস্টেমকে তৈরি করে নিতে পারেন। তাই গুনগত মান বেশ ভালোই বলে সবাই মেনে নেয়।

প্রশ্ন: লিনাক্সে বলে হার্ডওয়্যার সাপোর্ট পাওয়া যায় না?
উত্তর: লিনাক্স ডিস্ট্রোতে অনেক ডেভেলপার কাজ করছেন এবং সেই সাথে প্রতি ছয় থেকে এক বছর অন্তর অন্তর নতুন ভার্সন বের হচ্ছে বলে লিনাক্সে হার্ডওয়্যার সাপোর্ট অনেক ভালো। তবে কিছু কিছু প্রোডাক্টের ড্রাইভার সোর্সকোড মুক্ত না হওয়ায় অন্য ডেভেলপারদেরকে ড্রাইভার বানাতে হয়। এক্ষেত্রে কিছুটা সময় লেগে যায়। তবে বর্তমানে সাপোর্ট করা হার্ডওয়্যারের সংখ্যা প্রচুর। বর্তমানে বহুল ব্যবহৃত এমন সিস্টেমের হার্ডওয়্যার সাপোর্ট সহজে পাওয়া যায়।

প্রশ্ন: লিনাক্সে কোন সমস্যা হলে সমাধান করা নাকি খুবই কঠিন?
উত্তর: লিনাক্স ডিস্ট্রো সবাই ব্যবহার করেন না। আবার একই লিনাক্স ডিস্ট্রো সবাই ব্যবহার করেন এমনও না। তাই উইন্ডোজে যেরকম সমস্যা হলে যে কারও কাছে জিজ্ঞাসা করলে যেক্ষেত্রে সমাধান পাওয়া যায় লিনাক্সের ক্ষেত্রে সেরকম নয়। লিনাক্সে সমস্যা হলে নির্দিষ্ট স্থানে নির্দিষ্ট ব্যক্তিদের কাছে প্রশ্ন করা লাগে। এজন্য অনেকেই বলে থাকেন লিনাক্সে সমস্যা হলে সমাধান করা খুবই কঠিন। অনেক ক্ষেত্রে সমাধান পাওয়া কঠিন হলেও সমাধান করা মোটেও কঠিন নয়।

প্রশ্ন: লিনাক্সে কি উইন্ডোজ পার্টিশন দেখা যায়?
উত্তর: এখন প্রায় সব লিনাক্স ডিস্টোতেই ডিফল্ট হিসেবে উইন্ডোজ পার্টিশনগুলো দেখা যায় এবং ডাটা আদানপ্রদানও করা যায় নিরাপদে।

প্রশ্ন: উইন্ডোজে কি লিনাক্স পার্টিশন দেখা যায়?
উত্তর: ডিফল্ট হিসেবে উইন্ডোজে লিনাক্স পার্টিশন দেখা যায় না। তবে উইন্ডোজে অতিরিক্ত ড্রাইভার অথবা এপ্লিকেশন ইনস্টল করে দেখা যায়।

প্রশ্ন: উইন্ডোজ ও লিনাক্স কি ডুয়েল বুট করা যায়?
উত্তর: একসাথে একাধিক অপারেটিং সিস্টেম ইনস্টল করা সম্ভব। উইন্ডোজ ও লিনাক্স অবশ্যই পাশাপাশি ডুয়েল বুট করা সম্ভব।

প্রশ্ন: লিনাক্সের জন্য ভালো মানের এপ্লিকেশন নেই বলেই জানি। এটা কতটা সত্যি?
উত্তর: এটাও বরং উল্টা হবে। কারন হাজার হাজার ডেভেলপার মুক্তসোর্স এপ্লিকেশন তৈরি করছেন। এগুলোর গুনগত মান যেমন উন্নত তেমনই ব্যবহারবান্ধব। ফায়ারফক্স, গিম্প, অপেনঅফিস.অর্গ, জিএনইউ ক্যাশ ইত্যাদির কথাই ধরুন না কেন এগুলোর গুনগত মান অত্যন্ত উন্নত।

প্রশ্ন: উইন্ডোজের এপ্লিকেশন কি চালানো সম্ভব লিনাক্সে?
উত্তর: ডিফল্ট হিসেবে লিনাক্সে সরাসরি উইন্ডোজের এপ্লিকেশন চালানো সম্ভব না। তবে wine -এর মাধ্যমে বেশ কয়েকটি উইন্ডোজের এপ্লিকেশন লিনাক্সে চালানো সম্ভব। এছাড়াও ভার্চুয়্যাল বক্স তো রয়েছেই। তাছাড়া উইন্ডোজের এপ্লিকেশনের বিপরীতে বিকল্প এপ্লিকেশন লিনাক্সে রয়েছে বেশ কয়েকটি।

প্রশ্ন: লিনাক্সে কি গেইম খেলা যায়?
উত্তর: লিনাক্সে গেমস খেলা সম্ভব। লিনাক্সের জন্য তো কিছু খেলা ডেভেলপ কারই হয়। আবার উইন্ডোজের জন্য ডেভেলপ কার গেমসগুলোও খেলা সম্ভব। তবে স্বাভাবিক ইনস্টলেশনের মতো এই গেমসগুলো কাজ করে না। এগুলোকে লিনাক্সের জন্য কম্পাইল করে নিতে হবে। কিছু গেমস্ লিনাক্স wine অথবা cedega দিয়ে চালানো সম্ভব। wine সাধারনত একটু পুরানো গেমসগুলো চালায়, নতুন গেমসগুলো চালানোর মতো শক্তিশালী নয়। সেদিক দিয়ে cedega এগিয়ে আছে। তবে এর সমস্যা হচ্ছে এটি ব্যবহারের জন্য কিনতে হবে। আর ক্র্যাক করা (পাইরেটেড) গেমস cedega-তে চলবে না।

প্রশ্ন: লিনাক্সের কোন ডিস্ট্রো ভালো?
উত্তর: এই প্রশ্নের উত্তর আসলে ব্যবহারকারীর চাহিদার উপর নির্ভর করে। সাধারন দৈনন্দিন কাজের জন্য যে কোন ডিস্ট্রোই সমান কাজ দিবে। তবে বিশেষ কাজের জন্য বিশেষ ডিস্ট্রো লাগবে।

উবুন্টু, ওপেনসুস্যে, ফেডোরা, ম্যানড্রিভা রেডহ্যাট এগুলোই মানুষকে বেশি ব্যবহার করতে দেখা যায়।