গ্যালাক্সি সিরিজে আরো একটি অত্যাধুনিক বৈশিষ্ট্যের নতুন হ্যান্ডসেট যোগ করছে স্যামসাং। কোরিয়ান এই নির্মাতা জোর কন্ঠে জানান দিয়েছে, বিশ্বে এই প্রথম অ্যান্ড্রয়েড নিয়ন্ত্রিত প্রজেক্টর ফোনের আবির্ভাব তারাই করছে।

আকর্ষনীয় এই হ্যান্ডসেটের নাম গ্যালাক্সি বিম প্রজেক্টর ফোন। অ্যান্ড্রয়েড ২.৩ সংস্করণের প্রজেক্টর হ্যান্ডসেট ইমেজকে ৫০ ইঞ্চি পর্যন্ত চতূর্দিকে প্রসারিত করতে পারে। ৪ ইঞ্চির পর্দার এই ফোনে আছে দুটি ক্যামেরা। সম্প্রতি অনুষ্ঠিত মোবাইল ওয়ার্ল্ড কংগ্রেসে স্যামসাং তার সর্বশেষ ও সর্বাধুনিক পণ্যের মধ্যে প্রজেক্টর ফোনটিও উপস্থাপন করেছিল ।

অ্যান্ড্রয়েডের সবশেষ সংস্করণ পণ্যটিতে কেন থাকছেনা এ নিয়ে অনেকেরই মনে নানা প্রশ্ন রয়েছে, তবে প্রথম থেকেই স্যামসাং দাবি করে আসছে এটি বিশেষভাবে আইসিএস সংস্করণে হালনাগাদযোগ্য। এই বিমের ক্ষমতায় আছে ১৫ লিউমেন ডিজিটাল লাইট প্রজেক্টর (ডিএলপি) যা দুই মিটার দুরুত্বের ৩৬০ পিক্সেলের ছবি ৫০ ইঞ্চি পর্যন্ত প্রক্ষেপণ করতে সক্ষম। ডব্লিউভিজিএ মাল্টি-টাচ ধারণক্ষম এলসিডি প্রযুক্তির পর্দার পিক্সেলের গঠন ৮০০ বাই ৪৮০। যান্ত্রিক কার্যশক্তিতে আছে ১ গিগাহার্টজ ডুয়্যাল কোর সিপিইউ সাথে ৭৬৮ মেগাবাইট র‌্যাম। পরিমাপের ভিত্তিতে-পণ্যটির ওজন ১৪৫ গ্রাম, মাত্র ০.৫ ইঞ্চি মোটা, ৪.৯ ইঞ্চি উচ্চতা এবং চওড়া ২.৫ ইঞ্চি। যুক্ত অন্যান্য বৈশিষ্ট্যগুলো ৫ এমপি স্ন্যাপার যা ৭২০ পিক্সেলের ভিডিও ধারণ করতে সক্ষম, ভিডিও চ্যাটের জন্য সম্মুখ ভাগের ক্যামেরা ১.৩ এমপি এবং ইন্টারনাল স্টোরেজ ৮ জিবি সাথে ৩২ জিবি মাইক্রোএসডি স্লট। নির্মাতা সুত্রের তথ্যনুসারে ২০০০ এমএএইচ ব্যাটারি প্রজেক্টরের মাধ্যমে ৩ ঘন্টার ভিডিও প্লেব্যাক চালু রাখে এবং ২জি প্রযুক্তিতে ২০ ঘন্টা পর্যন্ত কথোপকথন সম্ভব। কোরিয়ান নির্মাতার আকর্ষণীয় এই সংখ্যায় ভক্তদের উচ্চাকাঙ্খাগুলো বাস্তব হবে এমন ধারণা এখন লোকমুখে, কারণ স্যামসাং প্রকৃতপেক্ষ এর খুচরা প্যাকেজে রাখছে বাড়তি আরেকটি ব্যাটারি । এছাড়াও অনুমান করা হচ্ছে স্যামসাং দক্ষতার সাথে একই ভাবে দ্বিগুণ টকটাইম সুবিধা রেখেছে, কারণ ব্যাটারি দুটির ‘বিবৃতি ছকের’ সুস্পষ্ট বিবরণ তাই প্রমাণ করে।

কিন্তু বর্তমানে ধারণা করা হচ্ছে অবশেষে এর একটি ব্যাটারি শুধু ১.৫ ঘন্টা চালাতে পারবে। ব্যবহারকারী যদি একটি মুভি একভাবে দেখতে চাই তবে অবশ্যই বাড়তি সময় ঠিক করে দিতে হবে। আলোচকদের অভিমত উক্ত বৈশিষ্ট্য সম্বলিত ফোন সত্যিই যদি আসে তবে ব্যক্তিগত মুভি থিয়েটার হিসেবে পণ্যটির জয় হবে।

এছাড়া সীমাহীন অ্যাপস প্রাপ্তিসাধ্য কেননা গুগল প্লে সুবিধা থাকছে, উপস্থাপনের জন্য আছে ড্রয়িং টুল। লেজার পয়েন্টার সুবিধাও রাখার ইচ্ছা প্রকাশ করেছে তারা।

স্যামসাং আরো জানিয়েছে, প্রজেক্টর ফোনের যথাযোগ্য স্থানে প্রতিষ্ঠানের প্রতীক সংযুক্ত করা হয়েছে। এই ফোন অল্প দামের কিছু ব্র্যান্ড মডেল যেমন ইনটেক্স, স্পাইস, মাইক্রোমেক্স এবং ম্যাক্স মোবাইলের শীর্ষে অবস্থানকারী। কিন্তু প্রজেক্টর ফোনের মাত্রাধিক মূল্য, ডলারে প্রায় ৬১৫ এবং রুপীতে পড়বে ৩০ হাজার। স্যামসাং’র একমাত্র প্রজেক্টর ফিচারের জোরে প্রতিপক্ষ প্রতিষ্ঠানগুলোর অগ্রগতির সম্ভাবনা এখন নিচে বলে ভাবছে সমালোচকরা।

অনলাইন ডেস্ক