আয়ারল্যান্ডের হাসপাতালগুলোতে ক্রমবর্ধমান হারে কভিড-১৯ রোগীর সংখ্যা হ্রাস পাচ্ছে এতে করে স্বাস্থ্যকর্মীরা অতিরিক্ত কাজের ধকল কাটিয়ে উঠছেন। স্বাস্থ্যসেবা অধিদপ্তরের বর্তমান পরিংখ্যান অনুসারে আয়ারল্যান্ডে মাত্র ৩৩১ জন কভিড-১৯ রোগী রয়েছে।

হাসপাতালে ভর্তি আছেন এমন রোগীর সংখ্যা খুবই কম। সবচেয়ে বেশী ৪৪ জন রোগী আছেন ডাবলিনের মেটার হাসপাতালে এছাড়া তালা হাসপাতালে ২৭, গলওয়ে ও লিমরিকের হাসপাতালে ৩১ জন রোগী আছেন। দেশের হাসপাতালগুলোর নিবিড় পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রে (আইসিইউ) ৩৬ জন রোগী আছেন, অবশিষ্ট ২২জন রোগীকে সন্দেহভাজন করোনা আক্রান্ত হিসেবে বিবেচনা করা হচ্ছে। এপ্রিলের প্রথম দিকে যখন করোনার প্রাদূর্ভাব চরম আকার ধারণ করেছিল তখন হাস্পাতালের নিবিড় পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রে রগীর সংখ্যা ছিল ১৬০ জন। বর্তমানে হাসপাতালের মুমূর্ষ রোগী পরিচর্চার বিছানা খালি আছে ১২৪ টি, তাছাড়া সারা দেশে সাধারণ রোগীদের পরিচর্চার বিছানা খালি আছে ১০৭১ টি। গতকাল হেলথ প্রটেকশন সার্ভিল্যান্স সেন্টারের তথ্যানুসারে ২ জন করোনা রোগীর মৃত্যু ঘটেছে।

আয়ারল্যান্ডে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন মোট ১৬৫২ জন রোগী। গতকাল নতুন করে ৬৬ জনের দেহে করোনা সণাক্তের মধ্য দিয়ে আয়ারল্যান্ডে মোট কভিড-১৯ রোগীর সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়ে দাঁড়িয়েছে ২৪৯৯৯ জন।

ওবায়দুর রহমান রুহেল
বার্তা সম্পাদক