এ বছর সোশ্যাল ওয়েলফেয়ার ব্যয় নির্বাহের জন্য অতিরিক্ত ৬.৮ ইউরো বিলিয়ন অর্থ ছাড় পেতে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়কে সংসদের অনুমতি নিতে হবে, তবে চলমান বেকার ভাতা কাটছাঁটে সরকারের সিদ্ধান্ত বেঁকে বসতে পারে বিরোধীরা।

কভিড-১৯ মহামারীর কারণে কর্মহীন বেকার জনগোষ্ঠীর জন্য চলমান বেকার ভাতায় সরকার সংশোধনী আনতে চাচ্ছেন। যারা পার্ট টাইম জবে ছিলেন তাদের ভাতা বন্ধ করার পরিকল্পনা নিয়েছেন সরকার। বর্তমানে প্রায় ২ লক্ষ মানুষ বেকার ভাতা পাচ্ছেন যারা আগে শুধু পার্ট টাইম কাজ করতেন এবং তাদের মোট উপার্জন চলমান ভাতার চেয়ে অনেক কম ছিল। এসব কর্মীদের নিয়োগদাতা প্রতিষ্ঠান অভিযোগ করেছেন যে বেকার ভাতা পেয়ে অনেকে কাজে যোগদানে নিরোৎসাহিত হচ্ছেন।

এই চলমান বেকার ভাতা কাটছাঁটে সরকারের পরিকল্পনা নির্ভর করছে - বিশেষ ওয়েলফেয়ার প্রোগ্রামের অর্থ ছাড়ের উপর, যা এই সপ্তাহের সংসদে ভোটাভুটির মাধ্যমে নির্ধারিত হবে। প্রধান বিরোধী দল শিনফিন, লেবার, পিপলস পিপলস্ বিফোর প্রোফিট ও স্বতন্ত্র টিডিরা ৩৫০ ইউরো কাটছাঁটের এই সীদ্ধান্ত রুখে দিতে পারেন, কেননা তারা সরকারের এই সীদ্ধান্তের ব্যাপারে ইতোমধ্যে সমালোচনায় মুখর হয়েছেন। গ্রীণ পার্টি তাদের সীদ্ধান্ত এখনো জানায়নি, ফিনাফল সরকারের সীদ্ধান্তকে সমর্থন জানিয়েছে।

লেবার টিডি জনাব গীড নাস বলেন, "যখন দেশের বৃহৎ অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড স্থগিত রয়েছে তখন কোন বিকল্প আয়ের ব্যবস্থা না করে চলমান বেকার ভাতা কাটছাঁটে হাজার হাজার মানুষের দুঃখ দুর্দশা আরও বাড়বে, এটা একটা ভুল সীদ্ধান্ত হবে।"

ওবায়দুর রহমান রুহেল
আইরিশ টাইমস্ থেকে অনুবাদ করা হয়েছে