গ্রীণ পার্টি নেতা ইমান রায়ান আশাবাদ ব্যাক্ত করে বলেন সরকার গঠণের ব্যাপারে তাঁর দলের সাথে বড় দুটি দল ফিনাফল ও ফিনেগেইলের চলমান সমঝোতার আলোচনা এ মাসের শেষের দিকেই সমাপ্ত হচ্ছে।

আলোচনার সারসংক্ষেপ নিয়ে লিখিত খসড়া পত্রটি দলীয় সাংসদদের (টিডিদের) বাসায় পৌঁছে দেয়া হবে। পরবর্তীতে ডাক যোগে সাংসদরা (TD) নিজেদের মতামতের ভিত্তিতে ভোট প্রদান করবেন। এ প্রক্রিয়া সম্পন্ন হলেই তিনটি দল সন্ধিচুক্তিতে আবদ্ধ হয়ে সরকার গঠন প্রক্রিয়ার যাবতীয় আয়োজনের ইতি টানতে পারে। আজ সকাল ১১ ঘটিকার সময় তিন দলের শীর্ষরা নেতারা দেড় ঘন্টা ব্যাপী এক সমঝোতাসূচক আলোচনা বৈঠকে মিলিত হন।

গত সপ্তাহে গ্রীণ পার্টির কাছে ফিনাফল ও ফিনেগালের পক্ষ থেকে সমঝোতা বৈঠকের ব্যাপারে আমন্ত্রণ জানানো হয়, সেখানে গ্রীণ পার্টির প্রধান দাবীগুলোর প্রতি সমর্থন জানানো হয়েছে।

উল্লেখ্য গ্রীণ পার্টির প্রধান দাবীগুলোর অন্যতম হলো কার্বন নিঃসরণের মাত্রা আগামী এক দশকের জন্য ৭ ভাগ কমিয়ে আনা।

এদিকে গত সাধারণ নির্বাচনে ভোটারদের প্রথম পছন্দের জনপ্রিয় রাজনৈতিকদল শিনফীন প্রধাণ মেরী লু ম্যাকডোনাল্ড বলেন, "তাঁর দলকে বাদ দিয়ে চলমান সমঝোতা আলোচনার ভিত্তিতে গঠিত সরকার দেশের জন্য কোন পরিবর্তন নিয়ে আসতে পারবেনা।"

তিনি তার রাজনৈতিক দলের এক সভায় বলেন, "জনাব লিও ভারাতকার কিংবা মিখল মার্টিনের নেতৃত্বে ঘটিত সরকার শুধুমাত্র শাসন ক্ষমতার অধিকারী হবেন কিন্তু যে পরিবর্তনের জন্য ভোটাররা ভোট দিয়েছিল তা বাস্তবায়ন হবে না। মিসেস ম্যাকডোনাল্ড আফসোস করে আরো বলেন শিনফীন কে ছাড়া সরকার গঠন হতে পারে কিন্তু তা আয়ারল্যান্ডের জনগনের আকাঙ্ক্ষার সরকার হবে না।

ওবায়দুর রহমান রুহেল
সংক্ষিপ্ত ও অনূদিত দ্যা জার্নাল ডট আই ই থেকে