ফিনাফল লিডার মিখল মার্টিন বলেছেন, নতুন সরকার পেনশনের বয়স ৬৭ বছরে উন্নীত করবেনা। গত বছর ফিনেগেইল ও ফিনাফল জোট সরকার পেনশনের মেয়াদ ৬৭ বছর পর্যন্ত বাড়ানোর পরিকল্পনা নিয়েছিল যা দেশে ব্যাপক সমালোচনার জন্ম দেয়।

অনেক রাজনীতিবিদ মনে করেন গত ফেব্রুয়ারির সাধারণ নির্বাচনে ভোটের রাজনীতিতেও প্রভাব ফেলেছিল সরকারের এই সীদ্ধান্ত। ফিনাফল প্রধান মিখল মার্টিন সেই সম্ভাবনা নাকোচ করে দিয়েছেন। সরকার গঠনের পূর্বেই মিস্টার মার্টিন পেনশনের মেয়াদ বাড়ানো হবে না এই মর্মে প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন, তবে জৈষ্ঠ্য নাগরিকদের কথা চিন্তা করে বিশেষ পদ্ধতিগত পরিবর্তন আনা হবে। নাগরিকরা ৬৫ বছর বয়স থেকেই বিশেষ ভাতা পাবেন এবং ৬৬ বছর বয়সে পূর্ণ পেনশন সুবিধা পাবেন।

উল্লেখ্য আয়ারল্যান্ডে বড় দুটি দল সরকার গঠণে নীতিগতভাবে একমত হয়েছেন। গ্রীণ পার্টির প্রধান ইমন রাইয়ান এই সপ্তাহেই দলীয় দাবিদাওয়া নিয়ে আলোচনার টেবিলে বসবেন। সমোঝোতায় উপনীত হলে অচিরেই তিন দল মিলে নতুন জোট সরকার গঠন করা সম্ভব হবে।

ওবায়দুর রহমান রুহেল
অনুবাদ করা হয়েছে আইরিশ এক্সামিনার থেকে