অধিকাংশ ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ মনে করেন বৃটেন ও আয়ারল্যান্ড ২০২০ সালের নির্ধারিত সময়ের ভিতরে কোন বাণিজ্য চুক্তিতে উপনীত হতে পারবে না।

ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দের প্রায় ১০ জনের মধ্যে ৯ জন মনে করেন আয়ারল্যান্ডের জন্য চুক্তিবিহীন ব্রেক্সিট স্বল্পমেয়াদে অর্থনীতিতে সংকট সৃষ্টি করবে। সম্প্রতি ইন্সটিটিউট অব ডাইরেক্টর আয়ারল্যান্ডের (IOD) এক জরিপে এসব তথ্য তুলে ধরা হয়েছে। গত ১৮-২৬ শে মার্চ পর্যন্ত এই জরিপ কার্যক্রম চালানো হয় এতে অংশগ্রহণ করেন বিভিন্ন কোম্পানির ৩,০০০ ডাইরেক্টর ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তাবৃন্দ।

যখন তাদেরকে এই প্রশ্নটি করা হয়, "আপনারা কি মনে করেন বৃটেন ও আয়ারল্যান্ড ২০২০ সালের নির্ধারিত সময়ের ভিতরে ব্রেক্সিটের বাণিজ্য চুক্তি সম্পন্ন করতে পারবে? তখন ৭৪% নেতৃবৃন্দ বলেন না, ১৩% বলেন হ্যাঁ এবং ১৪% বলেন তারা জানেন না। তাদেরকে আরেকটি প্রশ্ন জিজ্ঞাসা করা হয় " ব্রেক্সিট পরবর্তী সময়ে ইউরোপীয়ান ইউনিয়নে আয়ারল্যান্ডের মর্যাদা কি বৃদ্ধি পাবে? ৩০% মনে করেন হ্যাঁ যা গত বছরের তুলনায় ৯ ভাগ কমেছে, ৩০% মনে করেন এটা খুব জটিল সমীকরণ, এই মুহূর্তে বলা মুশকিল,২২% মনে করেন মর্যাদা কমবে, অবশিষ্ট ১৯% মনে করেন ব্রেক্সিটের কারণে ইউরোপীয়ান ইউনিয়নে আয়ারল্যান্ডের মর্যাদা অপরিবর্তিত থাকবে। ইন্সটিটিউট অব ডাইরেক্টর আয়ারল্যান্ডের নির্বাহী প্রধান মাইরা কুইন বলেন কভিড-১৯ মহামারীর কারণে ব্রেক্সিটের কার্যক্রম অনেকটা স্থগিত হয়ে গেছে, হয়তো চুক্তি সম্পাদনের জন্য আরো সময় বাড়ানো হতে পারে, পুরো বিষয়টি আবারো আইরিশ ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দকে অনিশ্চয়তায় ফেলে দিবে কেননা আয়ারল্যান্ডে অধিকাংশ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানই মুখিয়ে আছে ব্রেক্সিট পরবর্তী মুক্ত বাণিজ্যের জন্য বিভিন্ন কর্মপন্থা ও রূপরেখা নিয়ে।

ওবায়দুর রহমান রুহেল
অনুবাদ হয়েছে দ্যা জার্নাল ডট আই ই থেকে